November 27, 2022, 3:04 am


কচুয়ায় জোরপূর্বক বাড়ীঘর ভাংচুরের অভিযোগ

কচুয়ায় জোরপূর্বক বাড়ীঘর ভাংচুরের অভিযোগ

কচুয়া প্রতিনিধি ॥
কচুয়া উপজেলার বিতারা ইউনিয়নের বিতারা মিয়াজী বাড়ীতে জোরপূর্বক প্রবেশ করে বসতঘরের বেড়া,টিনের সীমানা প্রাচীর ভাংচুর ও বাঁশ কেটে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহ¯পতিবার বিতারা মিয়াজী বাড়ীতে এ ভাংচুরের ঘটনা ঘটে।

মিয়াজী বাড়ীর মৃত ফজর আলীর ছেলে ইসমাইল মিয়াজী জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার সময় একই বাড়ীর আবদুল ছাত্তারের ছেলে মোস্তফা কামাল,আবদুল মালেকের ছেলে মানিক দলবল নিয়ে আমার দখলীয় বিতারা-দূর্গাপুর মৌজার ৬০৫৭ দাগে অবস্থিত বাড়ীতে প্রবেশ করে বসত ঘরের বেড়া ভাংচুর,জোরপূর্বক গাছের চারা রোপন করে ও ঘর তোলার চেষ্টা করে। আমি আমার পরিবারের লোকজন নিয়ে বাঁধা দিতে গেলে তারা আমাদেরকে হুমকি ধমকি প্রর্দশন করে। এসময় পাশের বাড়ীর লোকজন এগিয়ে আসলে দলবল নিয়ে চলে যায়।

তিনি আরো বলেন,আবদুল ছাত্তারগংরা আমার ওই দাগের সম্পত্তি নকল কাগজপত্র দিয়ে সরকারি খাস-খতীয়ানভুক্ত ৬৫ শতক সম্পত্তি ২০১৯ সালের ১৮ মে খারিজ করে নেয়। মূলত ওই সম্পত্তি আমার দখলীয়। আমি উক্ত খারিজ বাতিলের জন্য ২০২১ সালের ২১ সেপ্টেম্বর চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) বারাবর মামলা দায়ের করি।

যাহার নামজারী আপিল মামলা নং-০৮/২০২১। মামলাটি বর্তমান চলমান রয়েছে। ওই ওয়ার্ডের কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ওয়ালি উল্লাহ বলেন, ইসমাইল মিয়াজীর দখলীয় জায়গার ভিতর একই বড়ির আবদুল ছাত্তার ও মালেক মিয়াজীর ছেলেরা দলবল নিয়ে বসত ঘরের বেড়া ভাংচুর করেছে যা আমাদের সমাজের লোকজনের কাম্য নয় । এ বিষয়ে কয়েক দফা শালিসের তারিখ হলেও আবদুল ছাত্তারগংরা শালিস বৈঠকে না এসে জোরপূর্বক ইসমাইল মিয়াজীর দখলীয় জায়গায় প্রবেশ করে বসত ঘরের ক্ষতি সাধন করেছে।

অপরদিকে আবদুল ছাত্তারগংরা জানান,আমরা খরিদ সূত্রে ওই জায়গার মালিক। আমরা আমাদের জায়গায় গাছের চারা রোপন করেছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


সংবাদ পড়তে লাইক দিন ফেসবুক পেজে